Dilip Ghosh On Minority: দিলীপের মুখে আচমকাই সংখ্যালঘু-বার্তা, মরণকালে হরিনাম বলে কটাক্ষ ফিরহাদের

আচমকাই বিজেপি নেতাদের সংখ্যালঘুদের নিয়ে মন্তব্য করা নিয়ে মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, মিঠুনদা জানেন না। উনি তো কালকের যোগী। আর দিলীপবাবু জানেন ঘৃণার রাজনীতি না করলে বিজেপির কোনও অস্তিত্ব নেই

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। সংখ্য়ালঘুদের নিয়ে এবার অন্য সুর দিলীপ ঘোষের মুখে। গরিব মানুষদের জন্য বহু যোজনার সুবিধে পাচ্ছেন দেশের অন্যান্য রাজ্যের সংখ্য়ালঘুরা। সেইসব সুবিধে থেকে বাংলার সংখ্যালঘু মানুষদের বঞ্চিত করেছে এরাজ্যের সরকার। বিজেপি সম্পর্কে ভয় পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে সংখ্যালঘুদের। রাজ্যের সংখ্যালঘুদের ভাবতে হবে তাঁরা মূল স্রোতে থাকবেন নাকি দিদির সঙ্গে থেকে গরিব হয়েই থাকবেন। এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুন-আমি থাকতেও অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক, সৌমিত্র সম্পর্কে বোমা সুজাতার

দিলীপ ঘোষ বলেন, পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৩০ শতাংশ সংখ্যালঘু। স্বাধীনতার ৭৫ বছর চলেছে। সংখ্য়ালঘুরা কী পেয়েছেন? তারা ভাবছেন। সমাজও ভাবছে। রাজ্যের ৩০ শতাংশ লোক যদি পিছিয়ে থাকে তাহলে পশ্চিমবঙ্গ কীভাবে এগোবে? দেশের সংখ্য়ালঘুদের উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী হাজার রকম যোজনা তৈরি করছেন। দেশে গরিব কল্যাণের জন্য যেসব সুযোগ দেওয়া হয়েছে তার সবচেয়ে বেশি লাভ পাচ্ছেন সংখ্যালঘুরা। বিজেপি সম্পর্কে ভয় পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে। গোটা দেশে বিজেপি এসে গিয়েছে। সংখ্যালঘুদেরও ভাবতে হবে তারা মোদীর সঙ্গে থাকবেন নাকি দিদির সঙ্গে থেকে গরিব জীবনযাপন করবেন। 

দিলীপ ঘোষের সংখ্যালঘু বার্তা নিয়ে পাল্টা দিলেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তৃণমূল নেতা বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস হিন্দু, মুসলমান, খ্রিষ্টান-সবার ভোটে জিতেছে। কারা যারা ৩৪ বছর বাম জমানার অপশাসন দেখেছেন তাঁরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পরিবর্তন চেয়েছেন। পরিবর্তনের পর যারা কোনও না কোনও প্রকল্পে উপকৃত তারা ভোট দিচ্ছেন। এখানে জাতি ধর্ম বর্ণের কোনও জায়গা নেই। ফলে মুসলমান ভোট তৃণমূলের, হিন্দু ভোট বিজেপির এই ধারণার কোনও মানে হয় না। 

এদিকে, কিছুদিন ধরেই বিভিন্ন জায়গায় তাঁর বক্তব্য বিজেপি সম্পর্কে সংখ্যালঘুদের ভুল বোঝানো হচ্ছে বলে সরব হচ্ছেন মিঠুন চক্রবর্তী। মিঠুনের বক্তব্য, বিজেপি কোনও দিনই মুসলিম বিরোধী ছিল না। এরকম একটা প্রচার চলছে যে বিজেপি মুসিলম বিরোধী। বিজেপি গোটা দেশের মুললিমদের জন্য কাজ করছে। দেশের মুসলমান ভাইবোনরা ভালো থাকুন। 

আচমকাই বিজেপি নেতাদের সংখ্যালঘুদের নিয়ে মন্তব্য করা নিয়ে মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, মিঠুনদা জানেন না। উনি তো কালকের যোগী। আর দিলীপবাবু জানেন ঘৃণার রাজনীতি না করলে বিজেপির কোনও অস্তিত্ব নেই। এখন মরণকালে হরিনাম। বিজেপি দেখছে গোটা দেশে অবস্থা খারাপ। তাদের প্রধান ফাইনান্সার আদানি ডুবে গিয়েছে। এখন মুসলিম ভোট পাওয়ার জন্য তাদের কাছে ডাকার চেষ্টা হচ্ছে। কিন্তু মানুষ কি ভুলে যাবে? কোনও সেক্যুলার মানুষ বিজেপিকে সমর্থন করতে পারে না। ধর্মনিরপেক্ষতার পথেই ভারত এগিয়ে যাবে। ধর্ম নিরপেক্ষতা নিয়েই ভারত থাকবে। বিজেপির এই সাম্প্রদায়িক রাজনীতি চলবে না।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

CategoriesUncategorized

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *